জীবন বদলে দেওয়ার মতো কথা/ উক্তি।

 আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা, । 

আশা করি আপনারা সবাই ভালো আছেন।  আজকে আপনার

দের জন্য কিছু জীবন বলতে দেয়ার মতো উক্তি নিয়ে আসলাম,। আশা করি ভালো লাগবে আপনাদে। 





★★হতাশ হবেন না★★


★★যখন রক্ত সম্পর্কীয় কেউ আপনার সাথে

     প্রতারণা করবে, ভেঙ্গে পড়বেন না ।

     মনে রাখবেন, হজরত ইউসুফ (আ:) আপন

     ভাইদের দ্বারা প্রতারিত হয়েছিলেন । ★★


★★যখন পিতামাতা আপনার প্রতিপক্ষ হয়ে 

     দাঁড়াবেন,  ভেঙ্গে পড়বেন না ।

     মনে রাখবেন, হজরত ইব্রাহিম (আ:) নিজ

     পিতার দ্বারাই আগুনে নিক্ষিপ্ত হয়েছিলেন । ★★


★★যখন ঘোর বিপদে পতিত হয়ে বের হয়ে আসার

    আর কোন উপায়ান্তর খুঁজে না পান, আশার

    শেষ আলোটুকুও দেখতে না পান,  ভেঙ্গে 

    পড়বেন না।

    মনে রাখবেন, হজরত ইউনুস আ: মাছের পেটের

    অন্ধকার প্রকোষ্ট থেকেও উদ্ধার হয়েছিলেন । ★★


★★ যখন আপনার বিরুদ্ধে অপবাদ আরোপ করা

     হবে আর গুজবে দুনিয়া ছড়িয়ে যাবে, ভেঙ্গে

    পড়বেন না, এসবে কান দিবেন না ।

     মনে রাখবেন, হজরত আয়শা সিদ্দিকা (রা:)

    এর বিরুদ্ধেও অপবাদ আরোপ করা হয়েছিল । ★★


★★যখন আপনি অসুস্থ হয়ে পড়বেন, ব্যাথায়

     ক★★তরাতে থাকবেন, ভেঙ্গে পড়বেন না ।

     মনে রাখবেন, হজরত আইয়ুব (আ:) আপনার

    চেয়েও হাজার গুণ বেশি অসুস্থ ছিলেন । ★★


★★যখন আপনি নির্জন/একাকীত্বে ভোগেন, ভেঙ্গে

    পড়বেন না ।

    স্মরণ করুন, হজরত আদম (আ:) কে

    প্রথমে একাকী সঙ্গীবিহিন সৃষ্টি করা হয়েছিল । ★★


★★যখন কোন যুক্তি দিয়েই আপনি কোন একটি

    অবস্থার পেছনের কারণ খুঁজে পাবেন না, তখন

    কোন প্রশ্ন ব্যতীতই স্মরণ করুন হজরত নুহ

    (আ:) এর কথা, যিনি অসময়ে কিস্তি/নৌকা

    তৈরি করেছিলেন । ★★


★★যখন আপনি পরিবার, আত্মীয় - সজন, বন্ধু -

     বান্ধব, সর্বোপরি সারা দুনিয়ার দৃষ্টিতে

    কৌতুকের পাত্রে পরিণত হবেন,  ভেঙ্গে পড়বেন

     না ।

     স্মরণ করুন, আমাদের প্রিয় নবী হজরত

     মুহাম্মদ (স:) এর কথা, যিনি তাঁর আপনজনের

     হাসি - তামাশার পাত্রে পরিণত হয়ে ছিলেন । ★★


★★যখন আপনাকে ফাঁসিতে ঝুলানোর ষড়যন্ত্র করা হবে  

    হতাশ হবেন না।

    মনে রাখবেন,হযরত ঈসা আঃ কে শূলে চড়ানোর  

    ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। ★★


★★আল্লাহ্ তায়ালা তার প্রেরিত সকল পয়গম্বরগণকেই  

    পরীক্ষায় ফেলেছিলেন এবং তাদেরকে

    উদ্ধার করেছিলেন ।

    এজন্য যে, যাতে করে দ্বীন পালনের ক্ষেত্রে

    পরবর্তী উম্মাহ ধৈর্য ধারণ করতে পারে, কষ্ট

    সহ্য করতে পারে । ★★

                          

                             

    ** আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সাথে আছেন **



This Is The Newest Post


EmoticonEmoticon